Dark Mode
Tuesday, 29 November 2022
Logo
কাতার বিশ্বকাপ নিয়ে ইউরোপের বিরুদ্ধে ভন্ডামির অভিযোগ

কাতার বিশ্বকাপ নিয়ে ইউরোপের বিরুদ্ধে ভন্ডামির অভিযোগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

 

দীর্ঘ ৪বছর প্রতীক্ষার পরে এবারে ফিফা বিশ্বকাপ ফুটবল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মরুরবুকে কাতারে। তবে কাতারের বিরুদ্ধে পশ্চিমা বিশ্বে ভন্ডামি শুরু করেছে বলে মন্তব্য করেছে ফিফার প্রেসিডেন্ট জিয়ানি ইনফান্তিনো।

 

বিশ্বকাপ শুরুর আগের দিন সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হবেন ফিফা সভাপতি—এটিই সাধারণ রীতি। সেই রীতি মেনে আজ কাতারের দোহায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।

তবে ফিফা প্রেসিডেন্ট তার ৫৪ মিনিটের সংবাদ সম্মেলনে যতটা না প্রশ্নের মুখে পড়েছেন, তার চেয়ে বেশিই তিনি প্রশ্ন তুলেছেন। এবারে বিশ্বকাপ আয়োজক কাতারের সমালোচনাকারীদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে রীতিমতো তোপ দাগিয়েছেন জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।

 

তিনি বলেন নৈতিকতা নিয়ে কাতারকে উপদেশ দেবার আগে ইউরোপের দেশগুলোর উচিত তারা অতীতে যা করেছে তার জন্য ক্ষমা চাওয়া। এবারে আয়োজক ফিফার বিশ্বকাপ শুরু হবার আগে কাতারে অভিবাসী শ্রমিকদের মৃত্যু এবং এলজিবিটি সম্প্রদায়ের মানুষদের প্রতি দেশটির আচরণের বিষয়গুলো নিয়ে পশ্চিমা বিশ্বে যেভাবে সমালোচনার ঝড় উঠেছে, তা আসল টুর্নামেন্টকে ম্লান করে দিয়েছে।
ইনফান্তিনো বলেছেন কাতারে অভিবাসী শ্রমিকদের বিষয় নিয়ে কথা বলার আগে ইউরোপের দেশগুলোর উচিত তাদের অতীত ইতিহাসের দিকে ফিরে তাকানো এবং তারা যা করেছে তার জন্য দুঃখপ্রকাশ করা।

 

কাতারের শ্রমিক অধিকারের সমালোচনা ইউরোপীয় দেশগুলোর ‘ভণ্ডামি’ উল্লেখ করে পশ্চিমা বিশ্বের অতীত ইতিহাসও মনে করিয়ে দিয়েছেন ইনফান্তিনো।

তিনি বলেন, “আমিও ইউরোপীয়। আমরা তিন হাজার বছর ধরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যা করেছি, নৈতিক শিক্ষা দেবার আগে আমাদের উচিত আগামী তিন হাজার বছর ধরে তার জন্য দুঃখ প্রকাশ করা।”

তিনি মনে করেন, এই একতরফা নৈতিক শিক্ষা শুধু একটা ভণ্ডামি। ২০১৬ সাল থেকে কাতার যেভাবে উন্নতি করেছে সে বিষয়টাকে কেন স্বীকৃত দেয়া হচ্ছে না। তা আমার বোধগম্য নয়।

 

ইনফান্তিনো সুইজারল্যান্ড ও ইতালির দ্বৈত নাগরিক ২০১৬ সালে ফিফা সভাপতির দায়িত্ব নেওয়ার আগে তিনি ছিলেন ইউরোপীয় ফুটবল কর্তৃপক্ষ উয়েফার জেনারেল সেক্রেটারি। তার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার উল্লেখ করে তিনি বলেন, তিনি বোঝেন বিদেশের মাটিতে বিদেশী হিসাবে বৈষম্য আর হেনস্থার শিকার হওয়ার অর্থ কী। তিনি এলজিবিটি সম্প্রদায়ের মানুষ ও অভিবাসীদের প্রতি তার সমর্থনের কথাও তুলে ধরেন।

 

ফিফা সভাপতি হিসেবে তার এসব বক্তব্য নিজের জানিয়ে আরো বলেন, ‘আমাকে কাতারের পক্ষে দাঁড়াতে হবে না, কাতার নিজেই নিজের কথা বলবে। আমি কথা বলছি ফুটবলের পক্ষে। কাতার উন্নতি করেছে। আরও অনেক কিছুতেও।’

 

সংবাদ সম্মেলনের শেষ দিকে ইনফান্তিনো সাংবাদিকদের অনুরোধ করেন, যেকোন কোচ ও খেলোয়াড়দের বিব্রতকর প্রশ্ন না করার জন্য ‘আপনাদের যদি কারও সমালোচনা করতে হয়, করুন। কোচ, খেলোয়াড়দের ওপর চাপ দেবেন না। সমালোচনা করতে চাইলে আমাকে বিদ্ধ করুন। আমি আছি। অন্যদের সমালোচনা করবেন না। কাতারের সমালোচনা করবেন না। বিশ্বকাপ মানুষকে উপভোগ করতে দিন।’

মন্তব্য / উত্তর

You May Also Like